খুলনা বিভাগীয় আওয়ামী লীগের সাথে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

1395

Published on ফেব্রুয়ারি 19, 2020
  • Details Image

খুলনা বিভাগীয় আওয়ামী লীগের এক যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

খুলনা বিভাগীয় জেলা নেতাদের উদ্দেশে বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ও এই সভার সভাপতি বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, কোনো কোনো উপজেলায় সম্মেলন হয়েছে, কোনো কোনোটায় হয়নি। কোথাও কোথাও শুধু সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা হয়েছে। কোনো কোনো উপজেলায় সম্মেলন হয়েছে, কিন্তু ইউনিয়নে হয়নি। আবার ইউনিয়নে হয়েছে তো ওয়ার্ডে হয়নি... আমি আপনাদের সামনে বিনয়ের সঙ্গে বলতে চাই, যে জেলাগুলোর সম্মেলন হয়েছে কিন্তু পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার সময় পাননি, সেই কমিটিগুলো অতি দ্রুত করে করে কেন্দ্রে জমা দেবেন। এরই মধ্যে আমাদের সাধারণ সম্পাদক (ওবায়দুল কাদের) চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন, সেগুলো আপনারা দ্রুত করে দেবেন।'

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ সরকারের সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সভায় তিনি বলেন, সামনে মুজিববর্ষ। আমি পরিষ্কারভাবে একটি কথা বলে দিচ্ছি। কিছুক্ষণ আগে আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি একটা কথা পরিষ্কারভাবে বলে দিয়েছেন মুজিববর্ষ উদযাপন করবেন, একটা নিয়মের ম‌ধ্যে। কোনো প্রকার চাঁদাবা‌জি করা যাবেনা। মুজিববর্ষের নামে চাঁদাবাজির দোকান যেন না হয়। বঙ্গবন্ধুর উচ্চতা বাড়াতে এসব চাঁদাবাজির দোকানগুলো বন্ধ করতে হবে।

কমিটি করার সময় সংগঠনের স্বার্থে দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের গুরুত্ব দেয়ার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, দল শক্তিশালী হলে সরকারও শক্তিশালী হবে। ভেতরের কোন্দল, কলহ যেকোনো মূল্যে অবসান করতে হবে। দলের মধ্যে বিভেদ রেখে দলকে শক্তিশালী করা যায় না। কিছু কিছু জায়গায় সমস্যা আমাদের আছে, এটা সত্য। অনেক ক্ষেত্রে নেতৃত্বের জন্য সমস্যার সৃষ্টি হয়। এগুলো সমাধান করতে হবে।

যেসব জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন বা ওয়ার্ডে সম্মেলন হয়নি, সেগুলোতে দ্রুত সম্মেলন আয়োজনের তাড়া দেন সভার সভাপতি বাহাউদ্দিন নাছিম। বিভাগীয় তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলার অঙ্গীকার করে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, আমরা মনে করি, আওয়ামী শক্তিশালী হলে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত আরও সুদৃঢ় হবে, আরও শক্তিশালী হবে। উন্নত-সমৃদ্ধ-আধুনিক বাংলাদেশ তৈরিতে আমরা শেখ হাসিনার পাশে থেকে আওয়ামী লীগকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারলে দেশের মানুষের প্রত্যাশা ও জাতির জনকের স্বপ্নের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা হবে।

আগামীতে খুলনা বিভাগের প্রতিনিধিদের নিয়ে যৌথ সভা বিভাগেই করা হবে বলেও জানান তিনি।

সভায় বিভাগের সব জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, দলীয় এমপি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন। বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হকের পরিচালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এছাড়াও কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, উপদফতর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য পারভীন জামান কল্পনা।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত