কক্ষপথে ফিরল বাংলাদেশ

আবদুল মান্নানঃ ২০২০ সালটা মানবসভ্যতার ইতিহাসে একটি ভয়াবহ বছর হিসেবে উল্লিখিত থাকবে। কারণ বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশই কভিড-১৯, যার প্রচলিত নাম করোনা, তার আগ্রাসনে ধরাশায়ী ছিল। এর ধ্বংসাত্মক ক্ষমতার কারণে এই কভিড-১৯ সৃষ্ট রোগকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মহামারি বা অতিমারি হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এর আগে সর্বশেষ এমন এক ধ্বংসাত্মক মহামারি বিশ্বকে আঘাত করেছিল গত শতকের গোড়ার দি...

মহামারি কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি: ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদন

করোনাভাইরাস মহামারি কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি। এক্ষেত্রে দেশটিকে আশা দেখাচ্ছে মূল রপ্তানি পণ্য পোশাক খাত ও প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক অতি সম্প্রতি জানিয়েছে, বাংলাদেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর গতি বেশ উৎসাহব্যাঞ্জক। তারা আভাস দিয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে আগামী জুনে শেষ হতে যাওয়া অর্থবছরে এ দেশের অর্থনীতিতে ...

সরকারের দূরদর্শিতা ও করোনাকালে কৃষি খাতে সফলতা

ড. মো. আজাদুল হকঃ করোনা আক্রান্ত বিশ্ব, নাস্তানাবুদ স্বাস্থ্য ও অর্থনীতি খাত ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের নেতৃত্বে যখন উন্নয়নের রোল মডেল বাংলাদেশ ঠিক সেই মুহূর্তে এই মহামারী গোটা অর্থনীতির ওপর চরম আঘাত হানল। এ অবস্থায় খাদ্যনিরাপত্তা ও কর্মসংস্থান দুদিক বিবেচনাতেই কৃষি খাত ব্যাপক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়ে পড়েছে। কৃষি অর্থনীতির দৃষ্টিকোণ থেকে আ...

করোনাসংকটে অর্থনীতিকে চাঙ্গা রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১ লক্ষ ১২ হাজার ৬৩৩ কোটি টাকার প্রণোদনা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা ভাইরাসের সংকটের কারণে দেশের বিভিন্ন খাতে মোট প্রায় ১ লাখ ১২ হাজার ৬৩৩ কোটি টাকার ২১টি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন, যা দেশের মোট জিডিপির ৪ দশমিক ০৩ শতাংশ।   মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজগুলোর মধ্যে রয়েছেঃ ১. রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহের জন্য বিশেষ তহবিল (মোট বরাদ্দ ৫,০০০ কোটি টাকা...

জীবন-জীবিকা রক্ষায় তৎপর প্রধানমন্ত্রী

জাহাঙ্গীর আলমঃ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে সৃষ্ট এমন সংকট নিকট অতীতে আর দেখেনি পৃথিবী। মহামারীতে স্থবির হয়ে পড়েছে ধনী-গরিব প্রায় সব রাষ্ট্র। বিশ্ব সংকটের এই ঢেউ আচড়ে পড়েছে বাংলাদেশেও। এই বিরূপ পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৎপর পদক্ষেপ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংকট নিরসনে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন রাত-দিন। মানুষের জীবন বাঁচানোর পাশাপাশি জীবিকা নিশ্চিতে নিয়েছেন একের পর এ...

প্রধানমন্ত্রীর ১৯তম প্রণোদনা প্যাকেজঃ ঋণগ্রহীতাদের ২ মাসের সুদ ভর্তুকি দেবে সরকার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে দেশব্যাপী বন্ধের প্রেক্ষিতে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যাংক ঋণ গ্রহিতাদের দুই মাসের সুদ মওকুফ করতে সরকারের পক্ষ থেকে ২ হাজার কোটি টাকার নতুন আরেকটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি এ পর্যন্ত ১৮টি প্যাকেজ দিয়েছি। আর এটা নিয়ে হলো ১৯ নং প্যাকেজ। যেহেতু নতুন প্যাকেজে গৃহীত ঋণের দুই মাসের সুদ স্থগিত করা হ...

কোভিড-১৯ ও অর্থনৈতিক বাস্তবতা

প্রণব কুমার পাণ্ডেঃ বিশ্বব্যাপী কভিড-১৯ এর ক্রমবর্ধমান বিস্তারের ফলে বেশিরভাগ দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এটি শুধু স্বল্প-মেয়াদী স্বাস্থ্য-সম্পর্কিত বিপর্যয়ই সৃষ্টি করেছে তা না বরং পৃথিবীর সকল দেশ সামাজিক এবং অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে। পৃথিবীর বেশিরভাগ অংশের মানুষের আয়ের উপর এর প্রভাব এতটাই যে সমাজে বৈষম্য আরো বেড়ে যাচ্ছে। ফলে সহজেই অনুমান করা যায়, এই বৈষম্যের প্রভা...

জনস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে সচল রাখতে হবে অর্থনীতি

খাজা খায়ের সুজনঃ করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ মহামারী প্রতিরোধে কার্যত অবরুদ্ধ সারাবিশ্ব। বাংলাদেশও তার ব্যতিক্রম নয়। মূলত গত দুই মাসের মতো এই অবরূদ্ধ অবস্থা শুষে নিচ্ছে বিশ্ব অর্থনীতির প্রাণ। পৃথিবীকে ঠেলে দিচ্ছে আরেকটি অতিমন্দার দিকে। করোনাভাইরাস সংকট চলতি বছর বিশ্বের অর্থনীতিকে ৩ শতাংশ সঙ্কুচিত করে দেবে বলে সতর্কবার্তা দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল মনিটরিং ফান্ড (আইএমএফ)। এত...

করোনা-পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশের অর্থনীতি নিরাপদ থাকবেঃ দ্যা ইকোনমিস্ট

করোনা ভাইরাসের মহামারীতে বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দার আভাস আসছে অনেক আগে থেকেই। এবার করোনা পরিস্থিতিতে অর্থনীতির নিরাপত্তা নিয়ে গবেষণা তালিকা প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক সাপ্তাহিক নিউজ পেপার দ্যা ইকোনমিস্ট। গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে দেখানো হয়, করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতাও ভারত-চীন কিংবা সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো দেশের চেয়েও তুলনামূলকভাবে নিরাপদ বাংলাদেশের অর্থনীতি। সেই হিসেবে...

করোনার থাবার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা মূলত একটি যুদ্ধ

স্বদেশ রায়ঃ এ মুহূর্তে পৃথিবীর সাড়ে সাত বিলিয়নের বেশি মানুষকে এটা মেনে নিতে হচ্ছে, তারা এক ধরনের ‘তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের’ মধ্যে বাস করছে। তবে কোভিড-১৯ আক্রান্ত এ পৃথিবীকে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের পৃথিবী বললে বিপদকে সঠিক উপলব্ধি করতে পারছি বলে মনে হবে না। বাস্তবে পৃথিবী তার ৭০ হাজার বছরের সভ্যতার ইতিহাসে এমন সংকটে এর আগে কখনও পড়েনি। আগের অনেক মহামারি বা বৈ...

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশঃ অগ্রযাত্রার ১১ বছর

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশঃ অগ্রযাত্রার ১১ বছর

গতিময় এশিয়ার মধ্যমণি বাংলাদেশ

ড. আতিউর রহমানঃ বিশ্ব অর্থনীতির দিনবদল দ্রুতই ঘটছে। এরই মধ্যে একুশ শতককে এশীয় শতক বলে বিশ্ব মেনে নিয়েছে। সারা পৃথিবী যখন প্রবৃদ্ধির দৌড়ে মন্থর হয়ে পড়ছে তখন গতিময় এশিয়াই বিশ্ব অর্থনীতির কেন্দ্রে অবস্থান করছে। চীন, ভারত, জাপান এশিয়ার বড় অর্থনীতি। হালে তিনটি দেশেরই প্রবৃদ্ধির হার কমছে। তা সত্ত্বেও যে হারে তাদের প্রবৃদ্ধি ঘটছে, বিশেষ করে চীন ও ভারতে, তাতে অর্থনীতির আকা...

শিল্পভিত্তিক অর্থনীতির পথে এগিয়ে চলছে দেশ

ড. এ. কে. আবদুল মোমেনঃ বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের বিস্ময়। অর্থনীতির প্রতিটি খাতে কাক্সিক্ষত অগ্রগতি অর্জিত হওয়ায় বিশ্ববাসী বাংলাদেশকে আজ মোস্ট ইমার্জিং কান্ট্রি হিসেবে স্বীকৃতি দিচ্ছে। বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান এক নম্বরে। বাংলাদেশের এ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে এ দেশের সফল প্রধানমন্ত্রী, জাতির জনকের কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার সুয...

এশিয়ার সবচেয়ে সফল উন্নয়ন গল্পের নাম বাংলাদেশ

ড. আতিউর রহমান: হালে বাংলাদেশের বিস্ময়কর উন্নয়নের কথা দেশি-বিদেশি অনেক অর্থনীতিবিদ ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে শুনেছি। বিশ্বব্যাংকের সাবেক অর্থনীতিবিদ, উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ প্রফেসর কৌসিক বসু গত বছরের মে মাসে ‘প্রজেক্ট সিন্ডিকেট’-এ লিখেছিলেন, ‘বাংলাদেশ কেন এমন তরতর করে এগোচ্ছে?’ ইংরেজিতে বুমিং শব্দটি ব্যবহার করেছিলাম। এরপর বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ, জাতিস...

সামাজিক নিরাপত্তাবলয়ের হাত ধরেই দারিদ্র্য জয়

ড. এ কে আব্দুল মোমেনঃ ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি সমৃদ্ধ দেশ গঠনের স্বপ্ন আজীবন লালন করে গেছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে তার সেই স্বপ্নের বীজ আজ পরিণত হয়েছে সুবিশাল বটবৃক্ষে। শেখ হাসিনার সরকার দেশের দারিদ্র্য দূরীকরণ, বৈষম্য হ্রাস এবং সামাজিক নিরাপত্তাবলয় সুসংহত করে জনসাধারণের জীবনমানের উন্নয়নে...

শক্তিশালী পুঁজিবাজার গঠনে কাজ করে যাচ্ছে সরকারঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তাঁর সরকার দেশব্যাপী প্রয়োজনীয় বিনিয়োগ শিক্ষা এবং বিনিয়োগকারীদের সম্ভাব্য সব ধরনের নিরাপত্তা প্রদানের মাধ্যমে একটি শক্তিশালী ও স্থিতিশীল পুঁজিবাজার গঠনে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সরকার একটি শক্তিশালী পুঁজিবাজার গঠনে কাজ করে যাচ্ছে, এর ফলে দেশের অভ্যন্তরে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে দীর্ঘ-মেয়াদি অর্থের যোগান দেয়া সম্ভব হবে।...

২০৩০ সালের মধ্যে ভারতের চেয়ে ধনী হবে বাংলাদেশ: স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড

আন্তর্জাতিক ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড-এর এক গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০৩০ সালের মধ্যে ভারতের চেয়ে ধনী দেশে রূপান্তরিত হবে বাংলাদেশ। তাদের গবেষণায় আভাস দেওয়া হয়েছে, ওই সময়ে ভারতীয়দের চেয়ে বাংলাদেশিদের মাথাপিছু আয় ৩০০ ডলার বেড়ে যাবে। গবেষণা প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, অর্থনীতির বিচারে আগামী দশক হবে এশিয়ার এবং শীর্ষ ৭ অর্থ...

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ

প্রবৃদ্ধির হার২০০৬ - ৫.৭%২০০৯- ৫.৭৪%২০১৮- ৭.৮৬%আওয়ামী লীগের ১০ বছরের শাসনামলে প্রবৃদ্ধির হার বৃদ্ধি পেয়েছে ২.১২% মাথাপিছু আয়২০০৬- ৪২৭ ডলার২০০৯- ৭১০ ডলার২০১৮- ১,৭৫২ ডলারআওয়ামী লীগের ১০ বছরের শাসনামলে মাথাপিছু আয় বেড়েছে ১০৪২ ডলার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ২০০৯- ১ বিলিয়ন ডলার২০১৮- ৩৩ বিলিয়ন ডলারআওয়ামী লীগের ১০ বছরের শাসনামলে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বৃদ্ধি পেয়ে...

পুঁজি বাজারের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭ সুপারিশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুঁজি বাজারের উন্নয়নে ৭ দফা সুপারিশমালা বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে বিএসইসি সহ পুঁজি বাজার সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি অর্থনীতিকে বেগবান, বৃহৎ প্রকল্প বাস্তবায়নে অর্থায়নের ক্ষেত্রে পুঁজিবাজারের অবদান বৃদ্ধি এবং বিনিয়োগকারীর সুরক্ষা নিশ্চিতকরণের জন্য বিএসইসিসহ পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্...

বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে সিঙ্গাপুরের বিনিয়গকারীদের জমি দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রস্তাব

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিঙ্গাপুরের বিনিয়োগকারিদের শিল্প স্থাপনের জন্য দেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ৫শ’ একর জমি বরাদ্দ দেয়ার প্রস্তাব করেছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদ ভবনস্থ কার্যালয়ে সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ী ফোরামের (এসবিএফ) নেতৃবৃন্দ তাঁর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এলে শেখ হাসিনা এই প্রস্তাব দেন। এসবিএফ’র সভাপতি এস.এস টো এ সময় ছয় সদস্য বিশিষ্ট প্রতি...

  • «
  • »