একটি বাড়ি একটি খামার, স্বাবলম্বী বাংলাদেশের অঙ্গীকার

 

কৃষির নিরন্তর সম্ভাবনার দেশ বাংলাদেশ। বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি কৃষি। কিন্তু স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে একটি দীর্ঘ সময় নানাবিধ বাধা বিপত্তির কারণে আমরা কৃষি খাতে তেমন সাফল্য অর্জন করতে পারি নি। ১৯৯৬ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্যা কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে। আওয়ামী লীগ সরকারই প্রথম এদেশের কৃষক তথা কৃষি খাতের উন্নতির জন্য ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল “একটি বাড়ি, একটি খামার” প্রকল্প।

বিশ্বব্যাপী জঙ্গির তালিকায় তালেবানের পরই শিবির

 

জামায়াতে ইসলাম, বাংলাদেশের ছাত্র সংগঠন ‘ইসলামী ছাত্রশিবির’ সম্প্রতি বিশ্বের শীর্ষ ১০টি বিশ্বব্যাপী সক্রিয় জঙ্গি সংগঠনের মধ্যে তৃতীয় স্থান দখল করেছে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক তথ্য ও মতামত সরবরাহকারী সংস্থা আইএইচএস এর রিপোর্ট ‘আইএইচএস-জেনস ২০১৩ গ্লোবাল টেরোরিজম অ্যান্ড ইনসারজেন্সি অ্যাটাক ইনডেক্স’ এ এই তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

ছয়টি মেগা প্রোজেক্টঃ একটি নতুন বাংলাদেশের অপেক্ষায়

 

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহারকে বাস্তবতায় রূপান্তর করতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বর্তমান সরকার সময়ক্ষেপন করছেনা। আওয়ামী লীগের চুড়ান্ত লক্ষ্য দেশের শান্তিকামী মানুষের আর্থ-সামাজিক মুক্তি সাধন এবং ক্ষুধা-দারিদ্র্যের বেড়াজাল ছিন্ন করে উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তোলা। ২০০৮ থেকে ২০১৩ সালে গৃহীত কর্মসুচী ও অসমাপ্ত প্রকল্পগুলো নির্ধারিত সময়ে শেষ করার যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিলো তা পূরণের পথে একধাপ এগিয়েছে সরকার। দেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে ব্যাপক পরিবর্তনের লক্ষ্যে সরকার ছয়টি মেগা প্রকল্পকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে।

 

বাণিজ্য বাড়াতে বাংলাদেশ, চীন, ভারত ও মিয়ানমার নিয়ে গঠিত হচ্ছে আঞ্চলিক ইকোনমিক করিডর। আর এ করিডর গঠিত হলে বাংলাদেশ বছরে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকার শুল্কমুক্ত বাণিজ্য সুবিধা পাবে। এতে করিডরে অংশগ্রহণকারী চারটি দেশের মধ্যে বছরে ৪৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকার বাণিজ্য বৃদ্ধি পাবে। আর ওই বাণিজ্য বৃদ্ধি থেকেই বাংলাদেশ সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকার শুল্কমুক্ত বাণিজ্য সুবিধা পাবে।

TOP