ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে লাভবান হচ্ছে গ্রামের সাধারণ মানুষ

 

মোঃ মিনারুল ইসলাম মহাজনপুর ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র, মুজিবনগর উপজেলা, মেহেরপুর জেলা এর উদ্যোক্তা। তিনি ২০১০ সালে ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্রে যোগদান করেন। তিনি ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র

এর মাধ্যমে মানুষকে বিভিন্ন সেবা দান করে সমাজে তার অবস্থানের উন্নতি করেছেন। এই ইউনিয়ন এর জনগণ ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র থেকে বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী সেবা পাচ্ছে।
প্রতিদিনই বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ফর্ম পূরণ করতে আসছে শিক্ষার্থীরা। স্থানীয় যুবকেরা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিতে আসছে। মহিলারা হাঁসমুরগি পালন সম্পর্কিত রোগ বালাই বিষয়ে খোঁজ নিতে আসছে। কৃষকেরা ফসল সম্পর্কিত খবর নিতে আসছে। সাধারণ জনগণ এখানে আসছে ইন্টারনেট সুবিধা নিতে অথবা বিদেশে থাকা বন্ধু বান্ধবের সাথে ভিডিও বার্তা আদান প্রদান করতে অথবা কম্পিউটার কম্পোজ, স্ক্যান বা প্রিন্ট করতে। সমাজের মানুষ তাদের দোরগোড়ায় তথ্য ও সেবার সহজলভ্যতায় খুশি কেননা এটা সময় ও শ্রম দুই ই বাচায়। এভাবেই মহাজনপুর ইউনিয়ন একটি গঠনমূলক পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে।
মিনারুল ইসলাম এর ভাষ্যমতে- "ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র আমার জীবন বদলে দিয়েছে। ভাল আয় রোজগার ছাড়াও এর দ্বারা আমি সমাজের গরিব ও বঞ্চিত মানুষের সাহায্য করতে পারছি। মানুষজন আমার উদ্যোগে তুষ্ট এবং তাদের খুশি আমার মন ভরিয়ে দায়। অন্য কোন পেশা আমাকে এই আনন্দ ও সন্তুষ্টি দিত না।" মোঃ ইসলাম এখন স্বনির্ভর। তিনি মাসে গড়ে ১৮,০০০-২০,০০০ টাকা আয় করছেন এবং তার পরিবার কে সাহায্য করছে। তার পরিবারও তার সাফল্যে খুশি। ইউনিয়ন এর জনগন তাদের একান্ত প্রয়োজনে মিনারুলকে পাশে পাবার ব্যাপারে সবসময় আশাবাদী। তিনি তার সমাজে খুবই জনপ্রিয়। মিনারুল ইসলাম মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং জাতিসংঘের মহাসচিব বান-কি-মুন এর পক্ষ থেকে শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র উদ্যোক্তা হিসেবে ২০১১ সালে পুরস্কার গ্রহণ করে।