ভারত বাংলাদেশের মধ্যে চালু হলো নতুন দুইটি ট্রেন

 

সেতু, কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম এবং ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে চলাচলকারী দুটি ট্রেন উদ্বোধন করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে ১২টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী সেতুসহ দুটি ট্রেন উদ্বোধন করেন।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে চলাচলকারী দুটি ট্রেন মৈত্রী ননস্টপ ও বন্ধন উদ্বোধন করা হয়। এর মধ্যে মৈত্রী ননস্টপ চলবে ঢাকা থেকে কলকাতা রুটে এবং বন্ধন চলবে খুলনা থেকে কলকাতা রুটে।

একইসঙ্গে ঢাকা-কলকাতা রুটের মৈত্রী ট্রেনের ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন ও কলকাতার রেলওয়েস্টেশনে কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনের কার্যক্রমেরও উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। তবে এই সুবিধা শুক্রবার থেকে কার্যকর করা হবে।

এর আগে সিলেট ও চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগে নির্মাণ করা দ্বিতীয় ভৈরব ও দ্বিতীয় তিতাস সেতুর উদ্বোধন করা হয়েছে। ট্রেন চলাচলের জন্য এরই মধ্যে সেতু দু'টি খুলে দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ভবন থেকে নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন। ভিডিও কনফারেন্সে আরও যুক্ত ছিলেন, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী।

এ সময় ভৈরবে রেল সেতুর নিচে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ঢাকা, কলকাতা ও দিল্লির সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে উদ্বোধন কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

ভারতীয় লাইন অফ ক্রেডিট (এলওসি)’র অর্থায়নে এই সেতুগুলো নির্মাণ করা হয়। নির্মাণ কাজ শেষে সেতুটি খুলে দেওয়া হয়েছে। একটি ডেমু ট্রেন দিয়ে ভৈরব সেতুটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

ছবিঃ ইয়াসিন কবির জয়

Share this
TOP