মানবমুক্তির কাণ্ডারি বঙ্গবন্ধু

গোলাম কবিরঃ মাতৃদুগ্ধসম’ মাতৃভাষায় মানুষের অধিকার যেমন সহজাত ‘স্বর্গদপি গরীয়সী’ মাতৃভূমিতে স্বচ্ছন্দে বসবাসের আধিকার অবদমিত ও অপহৃত হয়েছিল নানা কারণে। ইতিহাস যার সাক্ষ্য বহন করছে। বাংলা ভাষার মুক্তির সহযাত্রীদের অন্যতম হয়ে এবং স্বদেশমুক্তির পুরোধাজনকরূপে যাঁর অবদান অবিসংবাদিত, তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর এই অতুল অবদানের প্রতি শ্রদ্ধা...

মানবমুক্তির কাণ্ডারি বঙ্গবন্ধু

গোলাম কবিরঃ মাতৃদুগ্ধসম’ মাতৃভাষায় মানুষের অধিকার যেমন সহজাত ‘স্বর্গদপি গরীয়সী’ মাতৃভূমিতে স্বচ্ছন্দে বসবাসের আধিকার অবদমিত ও অপহৃত হয়েছিল নানা কারণে। ইতিহাস যার সাক্ষ্য বহন করছে। বাংলা ভাষার মুক্তির সহযাত্রীদের অন্যতম হয়ে এবং স্বদেশমুক্তির পুরোধাজনকরূপে যাঁর অবদান অবিসংবাদিত, তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর এই অতুল অবদানের প্রতি শ্রদ্ধা...

ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু

ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু ১৯৪৮    ৪ জানুয়ারি, ১৯৪৮ : তরুণ নেতা শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে গঠিত হয় পূর্ব পাকিস্তান মুসলিম ছাত্রলীগ। প্রতিষ্ঠাকালীন ছাত্রলীগের ১০ দফা দাবির মধ্যে অন্যতম দাবি ছিল রাষ্ট্রভাষা বাংলা।   ২৩ ফেব্রুয়ারি, ১৯৪৮ : বাঙালি গণপরিষদ সদস্য ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত পার্লামেন্টে প্রথমবারের মত বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা হিসাবে গ্রহণ করার জন্য একটি ব...

গোপনে অস্ত্র জমা দিলেও ক্ষমা করা হবে: বঙ্গবন্ধু

কেউ থানায় গোপনে অস্ত্র জমা দেয় তাদের ক্ষমা করে দেওয়া হবে। কিন্তু গুন্ডাদের বরদাশত  করা হবে না বলে হুঁশিয়ার করেন প্রধানমন্ত্রী  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯৭২ সালের ২২ ফেব্রয়ারি পত্রিকা বের না হওয়ায় ২৩ ফেব্রুয়ারি ‘দৈনিক বাংলা’য় প্রকাশিত প্রতিবেদনে একথা বলা হয়।  ওই বছরের ২১ ফেব্রুয়ারির  সভায় বঙ্গবন্ধু এ বক্তব্য  দেন। তবে সবচেয়ে...

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ২১ ফেব্রুয়ারি

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ২১ ফেব্রুয়ারি

বাংলা ভাষা চর্চা উন্নত করতে হবে

বাঙালীর মেরুদন্ড মাতৃভাষা বাংলা- এই সত্যকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য পাকিস্তানের জন্ম থেকেই বাঙালীরা ছিল সোচ্চার। ১৯৪৮ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান গণপরিষদের প্রথম অধিবেশন করাচীতে শুরু হলে পূর্ব বাংলার প্রতিনিধি ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষার ওপর একটি সংশোধনী প্রস্তাবে বলেন, উর্দু এবং ইংরেজীর সঙ্গে বাংলাকেও গণপরিষদের অন্যতম ভাষা হিসাবে ব্যবহার করা হোক। সংশোধনী প্রস্তাবটির ওপর আ...

ভাষা আন্দোলনঃ প্রেক্ষাপট পটুয়াখালী

শংকর লাল দাশঃ বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন কেবলমাত্র তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের রাজধানী ঢাকাতেই সীমাবদ্ধ ছিল না। এটি ছড়িয়ে পড়েছিল দেশের প্রতিটি জেলা, মহকুমা, থানা এবং গ্রাম পর্যায়ে। এর থেকে পিছিয়ে ছিল না সাগরপাড়ের দ্বীপ জেলা পটুয়াখালী। দেশের অন্যান্য এলাকার ন্যায় পটুয়াখালীর সর্বস্তরের মানুষ ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনে সমানতালে অংশ নিয়েছেন। বিশেষ করে এখানকার সংগ্রামী ছাত্র যু...

বাঙালি বলেই গৌরবদীপ্ত আমরা

অজয় দাশগুপ্ত: বাংলা ভাষা (বাঙলা, বাঙ্গলা, তথা বাঙ্গালা নামগুলোতেও পরিচিত) একটি ইন্দো-আর্য ভাষা, যা দক্ষিণ এশিয়ার বাঙালি জাতির প্রধান কথ্য ও লেখ্য ভাষা। মাতৃভাষীর সংখ্যায় বাংলা ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষা পরিবারের চতুর্থ ও বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম ভাষা। মোট ব্যবহারকারীর সংখ্যা অনুসারে বাংলা বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম ভাষা। বাংলা সার্বভৌম ভাষাভিত্তিক জাতিরাষ্ট্র বাংলাদেশের একমাত্র রাষ্ট্রভা...

ভাষার দাবিতে পূর্ব বাংলা জুড়ে প্রস্তুতি

১৯৫২ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি শুধু ঢাকার স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের জন্য ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছিল। কিন্তু ১০ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত সাপ্তাহিক ইত্তেফাক থেকে জানা যায়, সেদিন প্রদেশের বিভিন্ন স্থানে স্কুল-কলেজের ছাত্ররা ওই কর্মসূচি পালন করে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রগণ এই প্রদেশের বর্ণভাষার আত্মনিয়ন্ত্রণের উপর খাজা নাজিমুদ্দিনের স্বেচ্ছাচারী আক্রমণের প্রতিবাদে ...

ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগের অবদানঃ শেখ হাসিনা

[২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রদত্ত পূর্ণাঙ্গ ভাষণটি হুবহু মুদ্রিত হলো] আমি আমার বক্তব্যের প্রথমেই, আমি শ্রদ্ধা জানাই মহান ভাষা আন্দোলনে সেই সকল শহীদ, যাঁরা বুকের তাজা রক্ত দিয়ে আমাদেরকে মা বলে ডাকার অধিকার দিয়ে গেছে। শহীদ সালাম, রফিক, বরকত, জব্বার, শফ...

রাষ্ট্রভাষা আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানঃ এম আর মাহবুব

ভাষা আন্দোলনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি বিশেষ অবদান রয়েছে। আজন্ম মাতৃভাষাপ্রেমী এই মহান নেতা ১৯৪৭ সালে ভাষা আন্দোলনের সূচনা পর্ব এবং পরবর্তী সময় আইন সভার সদস্য হিসেবে এবং রাষ্ট্রপতি হিসেবে বাংলা ভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় নিজেকে আত্মনিয়োগ করেন। তিনি মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত বাংলা ভাষার উন্নয়ন ও বিকাশে কাজ করে গেছেন এবং বাংলা ভাষা ও বাংলাভাষীদের...

বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীতে ভাষা আন্দোলন: আনিস আহামেদ

 ফেব্রুয়ারি ৮ই হবে, ১৯৪৮ সাল। করাচিতে পাকিস্তান সংবিধান সভার (কন্সটিটিউয়েন্ট এ্যাসেম্বলি) বৈঠক হচ্ছিল। সেখানে রাষ্ট্রভাষা কি হবে সেই বিষয়ও আলোচনা চলছিল। মুসলিম লীগ নেতারা উর্দুকেই রাষ্ট্রভাষা করার পক্ষপাতী। পূর্ব পাকিস্তানের অধিকাংশ লীগ সদস্যেরও সেই মত। কুমিল্লার কংগ্রেস সদস্য বাবু ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত দাবি করলেন বাংলা ভাষাকেও রাষ্ট্রভাষা করা হোক। কারণ, পাকিস্তানের সং...

  • «
  • »