আমরা বাঙালি এটাই একমাত্র পরিচয়: বঙ্গবন্ধু

প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছেন, আঞ্চলিকতা নয়, আমরা বাঙালি— এটাই একমাত্র পরিচয়। আঞ্চলিক সংকীর্ণতা ও ভেদাভেদ ভুলে কারখানা ও খামারে উৎপাদন বাড়ানোর জন্য শ্রমিকদের প্রতি তিনি আহ্বান জানান। ১৮ জুলাই আদমজীনগরে এক বিরাট জনসভায় বক্তৃতাকালে বঙ্গবন্ধু বলেন, ‘আমরা বাঙালি। বাংলাদেশ আমাদের দেশ। এটাই আমাদের একমাত্র পরিচয়। এখানে জেলাওয়ারি সংকীর্ণতার...

শোষিত মানুষের মুক্তির পথ মুজিববাদ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বিশ্বের শোষিত মানুষের জন্য সংগ্রাম করবে। বঙ্গবন্ধুর মহান আদর্শ বাঙালি জাতির মুক্তির পথই নয়, এটা শোষিত মানুষের মুক্তির পথ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান ভৈরবে এক জনসভায় এ কথা ঘোষণা করেন। ১৯৭২ সালের ২১ জুলাই ইত্তেফাকে এ সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ জনসভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীর প্রধান আব্...

আদর্শ বজায় রাখলে সংগঠনের মৃত্যু হয় না: বঙ্গবন্ধু

১৯৭২ সালের ২১ জুলাই ছাত্রলীগের ৩ দিনব্যাপী সম্মেলন শুরুর দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার বক্তৃতায় ছাত্রলীগের জন্ম ইতিহাস বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন, ছাত্রলীগের সঙ্গে বাংলার সংগ্রামের ইতিহাস অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। ছাত্রলীগের মধ্যে ভাঙন ধরানোর চেষ্টা হয়েছিল। জনতার সঙ্গে একাত্মতা ও সংগ্রামী ঐতিহ্যের জন্য ছাত্রলীগের মৃত্যু ঘটেনি। অনুরূপভাবে আওয়ামী লীগ থেকে বহুবার বহু নেতা দলত্...

শান্তিরক্ষী দিবসে বঙ্গবন্ধুর স্মরনে ডাক টিকেট উন্মোচন করেছে জাতিসংঘ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে শান্তিরক্ষীদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরুপ এক সেট স্মারক ডাকটিকেট অবমুক্ত করল জাতিসংঘ। শনিবার (৩০ মে) জাতিসংঘ শান্তিরক্ষীদের আন্তর্জাতিক দিবস ২০২০ (শান্তিরক্ষী দিবস) উপলক্ষে এই ডাকটিকিট অবমুক্ত করা হয়। জাতিসংঘের পোস্টাল অ্যডমিনিস্ট্রেশন ও জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের যৌথ উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়। স্মারক ডাকট...

শেখ মুজিব মানেই বাংলাদেশ - অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া

২০২০ সালকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার মুজিব শতবর্ষ হিসেবে পালন করবে। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত দেশের প্রথম মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়’-এর পক্ষ থেকেও বছরব্যাপী বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করা হবে। ১৯২০ সালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন বাংলার স্বাধীন...

বঙ্গবন্ধু: কৈশোরেই চেনা মুখ - ফয়সল আবদুল্লাহ

ডানপিটে কৈশোর বঙ্গবন্ধুর জন্ম ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ। দুদিন পর গুনে গুনে ১০০ বছর হবে। ১০০ বছর আগের শৈশব আর এখনকার শৈশব তো এক নয়। এখনকার পরিবারগুলো ছোট ছোট। আগে ছিল বিশাল বড় যৌথ পরিবার। বঙ্গবন্ধুও বড় হয়েছেন বড় একটা পরিবারে। বিশাল বড় সেই পরিবারই হলো শেখ পরিবার। শেখ মুজিবুর রহমানই ছিলেন ওই পরিবারের বড় ছেলে (নাতি-পুতিদের মধ্যে)। ১০০ বছর আগে হলে কী হবে, বঙ্গবন্...

মুজিববর্ষ ও বাংলাদেশের লক্ষ্য

মোঃ শফিকুল ইসলামঃলেখার শুরুতে স্মরণ করছি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এবং তাঁকে বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। ২০২০ সালে এই মহান নেতার জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপিত হবে। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ এক বছর সময়কালকে মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করেছেন। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের জন্য দুটি কমিটিও গঠ...

কম্বোডিয়ার রাজধানীতে বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক হচ্ছে

কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে সড়ক হচ্ছে। কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী সামদেক হুন সেন বঙ্গবন্ধু স্মরণে এ নামকরণের উদ্যোগ নিয়েছেন। মুজিববর্ষকে সামনে রেখে মার্চে এর উদ্বোধন করা হবে বলে জানা গেছে। এদিকে বাংলাদেশের বারিধারার কূটনৈতিক এলাকার ‘পার্ক রোড’টির নামও কম্বোডিয়ার প্রয়াত রাজা নরোদম সিহানুকের নামে করা হচ্ছে। আগামী ২৬ ফেব্রুয়...

মুক্তির মহাযাত্রায়

দিল্লিতে ৮ জানুয়ারি ১৯৭২-এর সূর্যোদয় হলো প্রাত্যহিক স্বাভাবিকতায়। সময়ের ব্যবধানে লন্ডনে তখন গভীর রাত। দুই মহাদেশ ভরা অন্ধকার চিরে পিআইএর বিশেষ বিমানটি তখন লন্ডনের পথে। দিল্লির চাণক্যপুরীর ছককাটা সুপ্রশস্ত জনপথ, তাদের সদিচ্ছাবাহী নামফলকের সারি আর সুবিন্যস্ত উদ্যানরাজি কুয়াশার আবরণ থেকে ধীরে ধীরে চোখ মেলল। জনবিরল জনপথে নির্ধারিত ক্রমিকতায় অবতীর্ণ হলো সাইকেল, স্কুটার, ...

বন্দিজীবন, মুক্তির আলো

- সোহরাব হাসান ‘শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন এমন ব্যক্তি, যাঁকে ছাড়া বাংলাদেশের ইতিহাস লেখা যায় না, এমনকি কল্পনাও করা যায় না। ’ এ রকম মন্তব্যই করেছিলেন ১৯৭২ সালে তাঁর সাক্ষাৎকার নেওয়া বিদেশি সাংবাদিকেরা। ১৯৭২ সালে পাকিস্তানের জেলখানা থেকে স্বাধীন বাংলাদেশে আসার অব্যবহিত পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কয়েকজন বিদেশি সাংবাদিককে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন। এর...

ক্ষণ গণনার দিন ও উপমহাদেশকে বঙ্গবন্ধুর উপহার

- স্বদেশ রায় আজ ( ১০ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিন থেকে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর জম্ম শতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা। ১৯৭২ সালে এইদিন বাংলাদেশের আকাশ ছিল মেঘলা, শীতের জড়তা একটু বেশি করেই এদিন ঢাকাসহ সারা দেশের মানুষকে আটকে ধরতে পারতো। কিন্তু ১৯৭২ সালে ঘটনা হয়েছিল তার ঠিক উল্টো। বিদেশি প্রতিটি পত্রিকার রিপোর্ট, বাংলাদেশের পত্রিকার রিপোর্ট, বিদেশি সিনিয়র সাংবাদিকদ...

জনকের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন: বিজয়ের পরিপূর্ণতা অর্জন

- তোফায়েল আহমেদ বাঙালি জাতির জীবনে দশই জানুয়ারি চিরস্মরণীয় অনন্য ঐতিহাসিক দিন। ১৯৭২- এর এই দিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে বাংলার মানুষ বিজয়ের পরিপূর্ণতা অর্জন করে। যদিও ১৯৭১-এর ষোলোই ডিসেম্বর বাংলাদেশ হানাদার মুক্ত হয়। কিন্তু বাংলার মানুষ স্বাধীনতার স্বাদ পায়নি। কারণ, যার নেতৃত্বে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ, তিনি তখনো ...

ইতিহাসের মোড় ফেরা

- সোহরাব হাসান বাঙালির ইতিহাসে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি উজ্জ্বল একটি তারিখ। একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দখলদার পাকিস্তানি বাহিনীর নিঃশর্ত আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে বাঙালির বিজয় ঘটে। সেদিন এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মুজিবনগর সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ বলেছিলেন, ‘এ বিজয় সেদিন পূর্ণতা পাবে, যেদিন আমাদের প্রাণপ্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমা...

তাঁর জন্মশতবর্ষে

- আনিসুজ্জামান এ আমাদের অশেষ সৌভাগ্য—আমরা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদ্‌যাপন করতে পারছি। তাঁকে আমরা প্রতি বছরেই স্মরণ করব, কিন্তু সব জন্মবর্ষ তো জন্মশতবর্ষ হবে না। এবারে তাঁর জয়ন্তি বিশেষ তাৎপর্য বহন করে আসছে। আমরা বঙ্গবন্ধুর অর্জন স্মরণ করব, তিনি যখন বঙ্গবন্ধু হয়ে ওঠেননি, তখনকার কথাও মনে রাখতে চাইব। মহিরুহ তো মাটি ভেদ করেই মাথা তুলে দাঁড়ায়।শেখ মুজিবুর রহমান ...

মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার উদ্বোধন করলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবাষির্কী উপলক্ষে বছরব্যাপী মুজিব বর্ষ উদযাপনের জন্য আজ ক্ষণগণনার উদ্বোধন করেছেন। পাকিস্তানের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে বঙ্গবন্ধু ১৯৭২ সালের এই দিনে দেশে ফিরে আসেন। প্রধানমন্ত্রী নগরীর পুরাতন বিমান বন্দরে আয়োজিত এক বণার্ঢ্য অনুষ্ঠানে মুহূর্তটিকে বঙ্গবন্ধু’র ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস হিসাবে উৎ...

  • «
  • »