বাংলাদেশে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে নির্দেশনাঃ ব্যক্তিগত গাড়ি

153

Published on মে 27, 2020
  • Details Image

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় গৃহিত স্বাস্থ্য সেবা কার্যক্রম পর্যালোচনা এবং সমন্বয়ের লক্ষ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক দায়িত্বপ্রাপ্ত জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ কর্তৃক চীন ও অন্যান্য দেশের সংশ্লিষ্ট কারিগরি নির্দেশনা অনুসরণ করে 'বাংলাদেশে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ এবং অর্থনৈতিক কর্মকান্ড ক্রমান্বয়ে চালু করার সুবিধার্থে বিভিন্ন স্থাপনা ও পেশার জন্য কারিগরি নির্দেশনা' প্রণয়ন করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ব্যক্তিগত গাড়ি

১. কোথাও যাওয়ার পূর্বে ব্যক্তিগত গাড়িতে সুরক্ষা সরঞ্জাম যেমন মাস্ক, গ্লাভস ও জীবাণুনাশক রাখতে করতে হবে।
২. গাড়ীর ভেতর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে এবং চলাচলের সময় গাড়ির জানালা খোলা রাখতে হবে যেন বায়ুচলাচল করতে পারে।
৩. ব্যক্তিগত সুরক্ষা এবং স্বাস্হ্য বিধির (যেমন হাঁচি, কাঁশি দেওয়ার সময় মুখ টিস্যু দিয়ে ঢাকা কিংবা কনুইয়ের ভাঁজে হাঁচি দেওয়া) ব্যাপারে সচেতন হতে হবে।
৪. জনসাধারণের মাঝে থেকে গাড়িতে আসার পূর্বে চালক এবং যাত্রীকে সময় মত জীবাণুনাশক দিয়ে হাত পরিষ্কার করতে হবে।
৫. যদি কোন যাত্রীর সন্দেহজনক উপসর্গ, যেমন সর্দি বা জ্বর থাকে, সেক্ষেত্রে গাড়ির সকলের জন্য মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক। যাত্রি গাড়িতে ওঠার পর ভেন্টিলেশন রক্ষার্থে গাড়ির সকল জানালা খুলে দিতে হবে। সন্দেহজনক উপসর্গ থাকা ব্যক্তিটি যে সকল বস্তুর সংস্পর্শে এসেছিলেন (যেমন- দরজার হাতল, গাড়ির সিট, স্টিয়ারিং হুইল ইত্যাদি) জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।
৬. যদি কেউ বমি করে তাহলে তৎক্ষণাৎ ক্লোরাইড যুক্ত জীবাণুনাশক ও শোষনক্ষমতাসম্পন্ন কাপড় বা জীবাণুনাশক টিস্যু দিয়ে তা ঢেকে ফেলতে হবে এবং বমি সরিয়ে উক্ত জায়গা পর্যাপ্ত জীবাণুনাশক দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করতে হবে।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত