২০,০০০ মানুষের কাছে সাহায্য পৌঁছে দিচ্ছে 'এসো সবাই'

2798

Published on এপ্রিল 30, 2020
  • Details Image
  • Details Image

করোনা পরিস্থিতিতে অসহায় এবং কর্মহীন হয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে সাহায্যের উদ্দেশ্য নিয়ে এক ডিজিটাল উদ্যোগে যাত্রা আরম্ভ করে ‘এসো সবাই’ নামের সংগঠনটি। দেশের তথ্য প্রযুক্তি, ব্যবসা ও অর্থনীতি এবং সংস্কৃতি অঙ্গনের বিশিষ্টজনেরা এ উদ্যোগে সাড়া দিয়ে দ্রুতই এগিয়ে আসেন।

গাইবান্ধা সদর , দারিয়াপুর , বাড়িয়াখালী , বালুয়া, পূর্বপাড়া , ধানগড়া, পলাশবাড়ী ও সাদুল্লাহচরে চতুর্থ রোজায় প্রায় ১৫০ পরিবারকে ১০ দিনের খাদ্য সামগ্রী রোজার উপহার হিসেবে বিতরণ করে | আনুমানিক ২০০০০ মানুষের মাঝে রমযানের খাদ্য সামগ্রী এবং ইফতারের পণ্য বিতরণের উদ্দেশ্যে নিয়ে ইতিমধ্যে কার্যক্রম শুরু করেছে এসো সবাই। রাজধানী ঢাকাসহ গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, বাগেরহাট , বগুড়া, কিশোরগঞ্জ, কক্সবাজার, নড়াইল এবং রংপুর জেলায় এরই মাঝে কর্মহীন এবং অসহায় পরিবারের মাঝে এসব পণ্য বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। খাবার সামগ্রীর পাশা পাশি ঢাকা, কিশোরগঞ্জ , মেহেরপুর এর ডাক্তার, নার্স এবং করোনার সম্মুখ ভাগের যোদ্ধা সাংবাদিক দের মাঝে প্রায় ২০০ টি উন্নতমানের পিপিই বিতরণ করে | আমাল ফাউন্ডেশন, অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশন,আমার ফুড , এমজিআই, বিদ্যানন্দ, মিশন সেভ বাংলাদেশসহ বেশ কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাধ্যমে বিতরণ কার্যক্রম নিশ্চিত করা হচ্ছে।

নিজেদের কার্যক্রম সম্পর্কে এসো সবাই এর অন্যতম সহ-উদ্যোক্তা এবং বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার এন্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর পরিচালক দিদারুল আলম সানি বলেন, চলমান সংকট নিরসনের ক্ষেত্রে সম্পদের যথাযথ ব্যবহার ও সুষম বণ্টন নিশ্চিতের মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। তেমনই লক্ষ্য থেকে আমরা ছয় জন মিলে সম্পূর্ণ অনলাইন এবং ডিজিটাল ভিত্তিক এই সামাজিক উদ্যোগটি নিয়ে কাজ শুরু করি। আমাদের সাথে বিভিন্ন পেশার শতাধিক ব্যক্তিবর্গ আছেন। সম্প্রতি ইউটিউবে প্রকাশিত এক গানের মাধ্যমে তারা সবাই এসব ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে অন্যদের এগিয়ে আসতে আহবান জানিয়েছেন। এসো সবাই এর মাধ্যমে করোনা পরিস্থিতিতে যারা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, কাজ হারিয়ে কর্মহীন হয়েছেন তাদের জন্য আমরা প্রযুক্তির মাধ্যমে অনুদান সংগ্রহ করে তাদের মাঝে বিতরণ করতে পারছি। আবার সামাজিক দূরত্বও নিশ্চিত থাকছে। আবার অনুদান ডিজিটাল মাধ্যমে গ্রহণ করার ফলে আমাদের কার্যক্রমের স্বচ্ছতাও থাকছে।
 
ইভ্যালি ছাড়াও প্রায় ৮১ জন ব্যক্তি ও প্রাতিষ্ঠানিক দাতার কাছ থেকে ইতিমধ্যে ১৭ লক্ষাধিক টাকা অনুদান জমা হয়েছে বলেও জানান দিদারুল আলম সানি।

এসো সবাই এর ডিজিটাল ডোনেশন প্ল্যাটফর্ম www.eshoshobai.com

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত