ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

713

Published on জুলাই 23, 2022
  • Details Image

বিএনপি-জামায়াত বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে ভিক্ষুক বানিয়ে রাখতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছিলেন। বিএনপি ক্ষমতায় এসে দেশে খাদ্যঘাটতি তৈরি করেছিল। তারা বলে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ থাকলে নাকি বিদেশি সাহায্য পাওয়া যায় না। নিজেদের পকেট ভারি করার জন্য তারা বিশ্বের কাছে আমাদের কাঙালের মতো রাখতে চায়।

শুক্রবার (২২ জুলাই) বিকেলে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

চলমান বিদ্যুৎ পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, আমরা আরও বেশি উৎপাদন করতেই পারি বা পুরো উৎপাদনের যে সক্ষমতা রয়েছে সে পরিমাণ উৎপাদন করতে পারি। তাহলে অনেক বেশি দামে জ্বালানি তেল কিনতে হবে। বেশি দামে জ্বালানি তেল কিনে যদি পুরোটা বিদ্যুৎ উপাদন চালু রাখতে চাই তাহলে আমাদের অর্থনীতিতে তার বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।

তিনি বলেন, যখন সারাবিশ্ব বলছে সামনে একটি খারাপ দিন আসতে পারে। তখন মানবতার নেত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের কথা চিন্তা করে, মানুষের জন্য যেন কষ্ট না হয় সেজন্য এখনই আমাদের একটু সাশ্রয়ী হতে বলেছেন। সে কারণেই সুনির্দিষ্ট সময়ের জন্য সারাদেশে পালাক্রমে লোডশেডিং হচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা কি ভুলে গেছি শেখ হাসিনা আসার আগে সারাদিন বিদ্যুৎ থাকতো না, মাঝে মাঝে হঠাৎ আসতো? এখন গ্রামে-গঞ্জে ঘরে ঘরে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়েছে। সেই বিদ্যুৎ সরবরাহ করার সক্ষমতা রয়েছে আমাদের। কিন্তু ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমরা সাশ্রয়ী হচ্ছি। বিদ্যুৎ নিয়ে যারা গুজব ছড়ায় তাদের কথা শুনবেন না।

বর্তমান শিক্ষা কার্যক্রম নিয়ে এমপি (ময়মনসিংহ-৮ ঈশ্বরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম) সংসদে মিথ্যাচার করেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে মিথ্যা কথা বলে পরে আবার তা প্রত্যাহারের জন্য স্পিকারের কাছে আবেদন করেছেন। একবার তির ছুঁড়লে তা আর ফেরত আনা যায় না। তার এই বক্তব্য একটি চক্র সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এজন্য বড় কোনো ঘটনা ঘটলে দায়িত্ব তাকেই নিতে হবে।

সম্মেলনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, সদস্য মারুফা আক্তার পপি, সদস্য উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুছ ছাত্তার ছাড়াও জেলা ও উপজেলার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলন শেষে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ জেলা সার্কিট হাউসে সব প্রার্থীকে ডেকে নেন। পরে রাত ১০ টার দিকে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুছ ছাত্তারকে সভাপতি ও ছাফির উদ্দিন আহম্মেদকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট্য কমিটি ঘোষণা করা হয়।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত