প্রধানমন্ত্রীর জন্মবার্ষিকীতে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের আনন্দ শোভাযাত্রা ও দোয়া মাহফিল

118

Published on সেপ্টেম্বর 29, 2022
  • Details Image

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা , বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিনে বিশাল আনন্দ র‌্যালি বের করে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ।

বুধবার বিকেল ৩ টা ৪৫ মিনিটে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকীতে চৌহাট্টাস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে থেকে বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়। আনন্দ শোভাযাত্রাটি শহীদ মিনার থেকে জিন্দাবাজার হয়ে কোর্ট পয়েন্টে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। বাদ আসর বন্দরবাজার কালেক্টর জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং সন্ধ্যায় মির্জাজাঙ্গালস্থ নির্ম্বাক আশ্রমে বিশেষ প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। তাছাড়া প্যাগোডা, গীর্জাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয়েও বিশেষ প্রার্থনা করা হয়।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এটিএম হাসান জেবুলের পরিচালনায় আনন্দ শোভাযাত্রা পূর্ববর্তী ও পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সভাপতির বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ। 

তিনি বলেন, আজ জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা, প্রধানমন্ত্রী, দেশরত্ন শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মবার্ষিকী। আপনারা জানেন, জননেত্রীর অসাধারণ নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সারা বিশ্বে বাংলাদেশ সমাদৃত হচ্ছে। উন্নয়নের মহাসড়কে অবস্থান করছে। উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে। করোনাকালীন সময়ের সংকট মোকাবেলা করেছে। দেশ আজ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। উনার অসাধারণ নেতৃত্বের জন্য তিনি শুধু আজ বাংলাদেশের নেতা নন তিনি হলেন বিশ্বনেতা। উনার সাহসী ও জাদুকরী নেতৃত্ব এবং উন্নয়নের জন্য বিশ্বনেতারা উনাকে সম্মান ও সমীহ করছেন। এটা বাংলাদেশের জন্য অনেক বড় সম্মান। কিন্তু জননেত্রীর উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে রুখে দিতে যড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে। বিএনপি-জামায়াত গোষ্ঠী ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতায় আসতে চায়। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকারের উন্নয়নের যে ফসল জনগণ পাচ্ছে তা ব্যাহত করতে চায়। অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চায়। সবাইকে সজাগ থাকতে হবে যাতে তারা নতুন করে কোনো ষড়যন্ত্র না করে। ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে এগিয়ে যেতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নয়নের যে ধারা অব্যাহত আছে তা বজায় রাখতে আরও বেশি কাজ করতে হবে। সংগঠনকে আরও বেশি গতিশীল ও সুসংগঠিত করতে হবে। সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে আওয়ামী লীগ সহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। ইনশাআল্লাহ সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত হবেই। আজকের এই আনন্দ শোভাযাত্রা থেকে প্রিয় নেত্রীর দীর্ঘায়ু জীবন কামনা করছি। তিনি আনন্দ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণের জন্য সকল নেতা-কর্মীদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মহানগর মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, বিজিত চৌধুরী, মো. সানাওর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, বিধান কুমার সাহা, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, দপ্তর সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নজমুল ইসলাম এহিয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রহমান জামিল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মহিউদ্দিন লোকমান, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ জুবের খান, শ্রম সম্পাদক আজিজুল হক মঞ্জু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্ত্তী রনি,সহ-প্রচার সম্পাদক সোয়েব আহমদ, কোষাধ্যক্ষ লায়েক আহমেদ চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আব্দুল আজিম জুনেল, নুরুন নেছা হেনা, মো. শাজাহান, মুক্তার খান, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহিদ সারোয়ার সবুজ, রাহাত তরফদার, এমরুল হাসান, সুদীপ দেব, সৈয়দ কামাল, সাইফুল আলম স্বপন, রোকসানা পারভীন, ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, জাফর আহমদ চৌধুরী, তৌফিক বক্স লিপন, জামাল আহমদ চৌধুরী, খলিল আহমদ, আবুল মহসিন চৌধুরী মাসুদ, ইঞ্জিনিয়ার আতিকুর রহমান সুহেদ, শিপা বেগম শুপা, অ্যাডভোকেট তারাননুম চৌধুরী, জুমাদিন আহমেদ, রকিবুল ইসলাম ঝলক, ইলিয়াছ আহমেদ জুয়েল, সম্মানিত জাতীয় পরিষদ সদস্য অ্যাডভোকেট রাজ উদ্দিন, উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য আব্দুল মালিক সুজন, এনাম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সত্যেন্দ্র দাস তালুকদার খোকা বাবু, কানাই দত্ত, মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি এম শাহরিয়ার কবির সেলিম, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম রুমেন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাংশু দাস মিঠু, মহানগর তাঁতী লীগের সভাপতি নোমান আহমদ, সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল হাসনাত বুলবুল, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাঈম আহমেদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ মুফতি আব্দুল খাবির, আব্দুর রব হাজারি, হায়দার মো. ফারুক, সালউদ্দিন বক্স সালাই, রোকন আহমদ, ফখরুল হাসান, আক্তার হোসেন, দেলোওয়ার হোসেন রাজা, ফয়সল আক্তার, আনসার আহমদ কয়েছ, মো. ছয়েফ খাঁন, সৈয়দ আনোয়ারুস সাদাত, তাজ উদ্দিন লিটন, সোয়েব বাসিত, এম.এ খান শাহীন, জাহিদুল হোসেন মাসুদ, নজরুল ইসলাম নজু, অ্যাডভোকেট মোস্তফা দিলোয়ার আজহার, শেখ সুরুজ আলম, মো. বদরুল ইসলাম বদরু, মানিক মিয়া, চন্দন রায়, অ্যাডভোকেট সারোয়ার চৌধুরী আবদাল, আহমেদ হান্নান, মাহবুব খান মাসুম, রুমিন আহমদ, বদরুল হোসেন লিটন, মইনুল ইসলাম মঈন, ফজলে রাব্বি মাসুম, শেখ সোহেল আহমদ কবির, জাবেদ আহমদ, সেলিম আহমদ সেমিম, গোলজার আহমদ জগলু, সাজোয়ান আহমদ, এম.এন ইসলাম সহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের অসংখ্য নেতাকর্মীবৃন্দ।

আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে বাদ আছর বন্দরবাজার কালেক্টর মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মাওলানা মো. শাহ আলম। দোয়া মাহফিলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সহ পরিবারের সকল নিহত সদস্যের রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা সহ দেশ ও জাতি এবং বিশ্বের শান্তি কামনা করা হয়।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত