উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপন হবে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

269

Published on মে 27, 2024
  • Details Image

জাঁকজমকপূর্ণ, উৎসবমুখর ও আনন্দঘন পরিবেশে দলের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। কেন্দ্র থেকে শুরু করে সারা দেশে তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে আওয়ামী লীগের এ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হবে।

আগামী ২৩ জুন বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী দেশের প্রাচীনতম রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী প্লাটিনাম জুবিলি। ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন পুরান ঢাকার রোজ গার্ডেনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা হয়। প্রতি বছরই বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠার এই দিনটি উদ্যাপন করে আওয়ামী লীগ। তবে এ বছর প্লাটিনাম জুবিলি উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচির প্রস্তুতি নিচ্ছে দলটি।

আওয়ামী লীগের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নেওয়া কর্মসূচির মাধ্যমে আওয়ামী লীগের সুদীর্ঘ ইতিহাস, ঐতিহ্য, আন্দোলন, সংগ্রামে ভূমিকা তুলে ধরা হবে। এ লক্ষ্যে আলোচনা সভা, সেমিনার, চিত্র প্রদর্শনী, বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।  

এ সব অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে যেমন আওয়ামী লীগের ইতিহাস, ঐতিহ্য উঠে আসবে পাশাপাশি বাংলাদেশের জন্ম ইতিহাস এবং বর্তমানে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হওয়া ও উন্নত সমৃদ্ধ দেশের পথে অগ্রসর হওয়ার ক্ষেত্রে সফলতা, অর্জনগুলোও উঠে আসবে। আওয়ামী লীগের হাত ধরে বাংলাদেশর জন্ম, ঘাত প্রতিঘাত পেরিয়ে গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নেওয়া ও সেইসঙ্গে আওয়ামী লীগের মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক অবস্থার পরিবর্তন ও উন্নয়নের পথে রূপান্তর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে এই বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে ওই নেতারা জানান।

নেতারা আরও জানান, কেন্দ্রীয় থেকে শুরু করে সারা দেশে জেলা, উপজেলা, থানা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড পর্যায়ে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনে এসব কর্মসূচি নেওয়া হবে। বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক দলকেও আওয়ামী লীগের এ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হবে।  

মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের পাশে যেসব দেশ থেকেছে ওই সব দেশের রাজনেতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানোর চিন্তাভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে যেসব দেশ কাজ করছে সেসব দেশের রাজনৈতিক দলকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে। এ বিষয়গুলো এখনও আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে। দলের পরবর্তী সভায় আলোচনার পর বিষয়গুলো চূড়ান্ত করা হবে। এর পর  সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে বলেও ওই নেতারা জানান।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির মূল অনুষ্ঠান হবে রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন। এ অনুষ্ঠানে দেশি, বিদেশি আমন্ত্রিত অতিথিরা অংশ নেবেন। এ ছাড়া প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে "সবুজ ধরিত্রী" নামে দেশব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি হাতে নেওয়া হচ্ছে।

সম্প্রতি আওয়ামী লীগের এক সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সারা দেশে তিন দিনব্যাপী হীরক জয়ন্তী উদযাপন করা হবে। কেন্দ্রীয়ভাবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আলোচনা সভা হবে এদিন বিকেলে। মসজিদ মন্দিরসহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রার্থনাসভা অনুষ্ঠিত হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, আমাদের দলের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এটা আমাদের জন্য একটা বিরাট আন্দের বিষয়। জাঁকজমকপূর্ণ ও আনন্দঘন পরিবেশে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে আওয়ামী লীগের সুদীর্ঘ ইতিহাস, ঐতিহ্য, আন্দোলন, সংগ্রামের ভূমিকা তুলে ধরা হবে।  

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত